ব্রেকিং

x

মৃতের মাঝে প্রানের সঞ্চার দাফনের সময় কেঁদে উঠলো শিশুটি।

মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮ | ৪:০৭ অপরাহ্ণ | 1034 বার

মৃতের মাঝে প্রানের সঞ্চার দাফনের সময় কেঁদে উঠলো শিশুটি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে মৃত ঘোষনা করা এক শিশু দাফনের সময় নড়ে কেঁদে উঠলো। গতকাল রাজধানীর আজিম পুরে কবরস্থানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত টিম গঠন করেছে ঢামেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। জানা গেছে গত শনিবার মধ্যরাতে ঢাকার ধামরাই উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের শারমিন আক্তার (২০) প্রসব ব্যথা অনুভব করলে সঙ্গে সঙ্গে তাকে ঢামেক হাসপাতালে গাইনী বিভাগে ভর্তি করা হয়। সকাল ৭-৩০মিনিট ১০৫নং ওয়ার্ড, ৪নং বেডে শারমিন এক কন্যা সন্তান প্রসব করেন। এবং কিছুক্ষন পর বাচ্চা সম্পর্কে জানতে চাইলে চিকিৎসক বাচ্চাটিকে মৃত ঘোষনা করেন। মৃত সংবাদ শুনে মা, বাবা আশার আলোতে নিরাশার সঞ্চার হয়। মৃত সংবাদে পিতা শোকে বিহব্বল। নিয়তির পরিহাস কারো কিছুই করার নেই, এই বাস্তবতাকেই মেনে নিতে হবে। শিশুটির বাবা শান্তনার ভাষা হারিয়ে ফেলেন। এর মাঝেও ভালবাসার চিহৃস্বরূপ কন্যার নাম মীম রাখেন তাঁরা। হাসপাতাল থেকে ডেথ সার্টিফিকেট পাওয়ার ঘন্টা দেড়েকের মধ্যে ঘটে যায় মিরাকেল। দাফনের আগ মূহুর্তে নড়েচড়ে উঠে শিশুটি। শিশুটির মামা শরিফুল উসলাম ডেথ সার্টিফিকেট পাওয়ার পর শিশুটিকে আজিমপুর কবরস্থানে কবর দেওয়ার জন্য নিয়ে যান। বেলা দশটার দিকে কবরস্থানে দায়িত্বরত ইয়াসমিন বেগম শিশুটিকে গোসল করানোর সময় তার মামাকে জানান যে, শিশুটি বেঁচে আছে। বলেন, গোসল করানোর সময় শিশুটি নড়ে উঠেছে। সংগে সংগে শিশুটিকে আজমপুর মেটারনিটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা শিশু হাসপাতলে পাঠানো হয়। এ খবরে হতবাক হয়ে পড়ে মিনহাজ । অন্য দিকে ঢামেকে ভর্তি থাকা স্ত্রীর অসুস্থ্যতা। শিশু হাসপাতলের পরিচালক ড. অধ্যাপক আব্দুল আজিজ বলেন, শিশুটির বাঁচার আশা খুব ক্ষীন। তার পরও বাঁচানোর লক্ষে আমরা চিকিৎসা দিচ্ছি এবং আরেকটা মিরাকেলের অপেক্ষা করছি।



নামাজের সময়সূচি

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩০ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ৭:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ

Development by: webnewsdesign.com