ব্রেকিং

x

না বুঝেই সমালোচনা হচ্ছে চুক্তির: তথ্যমন্ত্রী

বুধবার, ০৯ অক্টোবর ২০১৯ | ১২:০১ পূর্বাহ্ণ | 46 বার

না বুঝেই সমালোচনা হচ্ছে চুক্তির: তথ্যমন্ত্রী
হাছান মাহমুদ, ফাইল ছবি

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘চুক্তি না পড়ে, না বুঝেই যারা হতাশা প্রকাশ করেন, সেটা তাদের পুরনো কু-অভ্যাস। সবকিছুতেই হতাশা ব্যক্ত করা, না পড়েই প্রতিক্রিয়া দেওয়া তাদের বদ অভ্যাস।’

সোমবার (৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের প্রচার উপ-কমিটির সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে সম্পাদিত চুক্তির বিষয়ে বিরোধী দলগুলোর করা মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

গত শনিবার (৫ অক্টোবর) ভারতের সঙ্গে ৭টি চুক্তি ও সমঝোতা সই করেছে বাংলাদেশে। বিএনপি, বাসদ ও তেল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি এসব চুক্তিকে ‘অসম’ অভিহিত করে হতাশা প্রকাশ করেছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, “যারা ভারতের সঙ্গে করা চুক্তিগুলো নিয়ে হতাশা প্রকাশ করছেন, তারা চুক্তি পড়েননি কিংবা বোঝেননি। অনেকে বোঝেনইনি যে এলপিজি মানে প্রাকৃতিক গ্যাস নয়, বরং ‘ক্রুড অয়েল’ বা অশোধিত পেট্রোলিয়াম পরিশোধন করার সময় প্রাপ্ত উপজাত, যা রফতানির সুযোগ দেশের জন্য অর্থনৈতিকভাবে অনেক লাভজনক।”

এর ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, “বিদেশ থেকে আমরা যে ‘ক্রুড অয়েল’ আমদানি করি তা রিফাইন বা পরিশোধন করার সময় তেলের পাশাপশি প্রাপ্ত উপজাত হচ্ছে এই এলপিজি, যা রফতানির সুযোগ আমাদের অর্থনীতির জন্য সুসংবাদ।”

ফেনী নদীর পানি ভারতের ব্যবহার প্রসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ত্রিপুরা থেকে আগত ফেনী নদীর পানি ভারত আগে থেকেই ব্যবহার করে আসছিল, এবারের চুক্তিতে তাকে একটি কাঠামো-সীমার মধ্যে আনা হয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর অত্যন্ত ফলপ্রসূ হয়েছে দাবি করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, “চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহারে ‘স্ট্যান্ডার্ড অপরেটিং প্রসিডিউর-এসওপি’ বা কার্যপ্রণালী স্বাক্ষর একটি অসামান্য অগ্রগতি। ভারতের চট্টগ্রাম ও মোংলা, বিশেষ করে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারের ফলে আমাদের প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা ও বন্দর ব্যবহারজনিত নানামুখী আয় বৃদ্ধি পাবে।’

বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান বলেন, ‘তদন্তে যে বা যারাই দোষী প্রমাণিত হবে, তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ তবে কাউকে আটক করার অর্থ তাকে দোষী সাব্যস্ত করা নয়, তদন্তের পরই দোষী কে বা কারা বোঝা যাবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী জানান, ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেটের পর এবার খুলনায় আগামী ২৭ অক্টোবর ‘তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ’ উন্মুক্ত সেমিনার আয়োজন করা হচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক যে বইটি প্রচার উপ কমিটি প্রকাশ করেছিল, মুজিববর্ষ উপলক্ষে সেই বইয়ের দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশিত হবে। আর শিগগিরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর রচিত ‘গণতন্ত্রের বহ্নিশিখা’ বইটিরও দ্বিতীয় সংস্করণ ও একটি ফটো অ্যালবাম প্রকাশ করা হবে।

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা ও আওয়ামী লীগের প্রচার উপ-কমিটির সভাপতি এইচ টি ইমাম, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

এইচ টি ইমাম চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযান নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, দুর্নীতি বা দুর্বৃত্তায়নের হোতা যেই হোক, কোনও ছাড় দেওয়া হবে না।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Development by: webnewsdesign.com